কেনাবেচার নীতি

ব্যসিক্যালি, প্রায় সব ক্ষেত্রেই আমরা ইন শা আল্লাহ্‌  বিক্রিত পণ্য ফেরত নিচ্ছি। প্রোডাক্ট ডেলিভারি নেয়ার সময় সাথে সাথে ভালোভাবে দেখে নেয়ার জন্য অনুরোধ। সমস্যা হলে তা তৎক্ষণাৎ ডেলিভারি ম্যানকে দিয়ে দিবেন।

এখন আসি “সমস্যা” গুলোর বিষয়েঃ

এক প্রোডাক্টের জায়গায় আরেক প্রোডাক্ট, খুঁতযুক্ত প্রোডাক্ট হলে স্টকে থাকা সাপেক্ষে আপনাকে প্রোডাক্ট আবার দিয়ে আসা হবে। আমাদের এ ভুলের জন্য ডেলিভারি কস্ট পুরোটাই আমরা বহন করি। আর যদি আমাদের কাছে প্রোডাক্ট না থাকে তবে আপনাকে পুরো টাকা রিফান্ড করে দিব। যদি এমন অবস্থা দেখা দেয় যে, টেইলারসে গিয়ে শার্ট, পাঞ্জাবি বানানোর মতো কাপড় হচ্ছে না, কাপড় কম হয়েছে- সেক্ষেত্রে আপনাদের থেকে কোন রকম খরচ ছাড়া আমরা কাপড় ফেরত নিব।

আমাদের কাছ থেকে পাঞ্জাবি বানিয়ে নিয়ে পড়ার পর বা কাপড় কিনে ক্রেতা নিজে বানিয়ে পড়ার পর যদি ৭ দিনের মধ্যে দেখা যায় রঙ উঠে যাচ্ছে, কাপড়ের ফুটিফুটি উঠে গিয়েছে (ববলিন ওঠা যাকে সচরাচর বলে থাকি)- এক্ষেত্রে আমরা পণ্য ফেরত নিয়ে সম্পূর্ণ টাকা ফিরিয়ে দিতে বাধ্য থাকবো ইন শা আল্লাহ্‌।

দেখা গেল, প্রোডাক্ট হাতে পাওয়ার পর তা পছন্দ হয়নি। রঙ বা অন্যকোন কারণে তা ভালো লাগছে না- ক্রেতার এই অনুভূতিকে আমরা অবশ্যই সম্মান করি এবং অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করি। এক্ষেত্রেও আমরা বিক্রিত পণ্য ফেরত নিচ্ছি। তবে যেহেতু এটি পছন্দের বেশ কম- তাই ডেলিভারি চার্জটা একটু কষ্ট করে ক্রেতাকে দেখতে হবে। দোকান থেকে কিছু কিনে আনার পর ভালো না লাগলে তো আবার নিজে গিয়েই প্রোডাক্ট পরিবর্তন করে আনতেন, তাই না?

তাহলে আবার যদি পুরোটা পড়ে দেখি, ‘টার্মস এন্ড কন্ডিশন্স’, ‘রিটার্ন পলিসি’- যাই বলুন না কেন এগুলো হচ্ছে মাত্র একটা! :D উপরিউক্ত যেকোনো ঘটনায় ক্রেতা সমমূল্যের পণ্য অথবা অর্থ ফেরত নিতে পারবেন। ইসলামী অর্থনীতি এই অধিকার ক্রেতাকে দিয়েছে। আপনাদের কাজ হবে শুধু একটু কষ্ট করে আমাদের জানিয়ে দেয়া; ফেসবুক পেজে হোক বা ওয়েবসাইটের ইনবক্সে হোক বা মোবাইলে। বাকিটা ইন শা আল্লাহ্‌, আমরা দেখবো।

 সকল ধরণের কেনাকাটা হোক আনন্দময়- এই কামনায় ‘মাসাবাহ’।